জুমার দিন সপ্তাহের শ্রেষ্ঠ দিন

чехлы на рапид ওমর শাহ: জুমার দিন সাপ্তাহিক ঈদের দিন। তাই কোনো মুসলমানের উচিত নয় যে, জুমার নামাজ থেকে বিরত থাকা। জুমার দিনকে সপ্তাহের শ্রেষ্ঠ দিন ঘোষণা দিয়েছেন বিশ্বনবী (সাঃ)। আবার রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন, চার শ্রেণির লোক ব্যতিত জুমার নামাজ ত্যাগ করা কবিরা গোনাহ। ১. ক্রীতদাস; ২. স্ত্রীলোক; ৩. অপ্রাপ্ত বয়স্ক বালক; ৪. মুসাফির এবং রোগাক্রান্ত ব্যক্তি। বিনা ওজরে যে বা যারা জুমার নামাজ আদায় থেকে বিরত থাকবে, তাদের জন্য রয়েছে ভয়াবহ পরিণাম। রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন, যে ব্যক্তি পরপর তিনটি জুমা বিনা ওজরে ও ইচ্ছা করে ছেড়ে দেবে, আল্লাহ তাআলা ঐ ব্যক্তির অন্তরে মোহর মেরে দেবেন। (তিরমিযী, আবু দাউদ, নাসাঈ, ইবনে মাজাহ)।

http://dskobe.org/delo/bht-efremov-spiski-vipusknikov.html бхт ефремов списки выпускников

http://merrimackvalleylock.com/community/kak-sdelat-mangal-iz-kolesnih-diskov.html как сделать мангал из колесных дисков রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন, জুমা ত্যাগকারী লোকেরা হয় নিজেদের এই খারাপ কাজ হতে বিরত থাকুক। (অর্থাৎ জুমার নামাজ আদায় করুক), নতুবা আল্লাহ তা’আলা তাদের এই গোনাহের শাস্তিতে তাদের অন্তরের ওপর মোহর করে দেবেন। পরে তারা আত্মভোলা হয়ে যাবে। অতপর সংশোধন লাভের সুযোগ থেকেও বঞ্চিত হয়ে যাবে। (মুসলিম)।

http://www.dierenweidedekraal.nl/leon/lotereya-sportloto-pravila-igri.html лотерея спортлото правила игры

понятие и содержание налоговой обязанности হজরত ইবনে আব্বাস (রাঃ) বর্ণনা করেন যে ব্যক্তি পর পর তিনটি জুমা পরিত্যাগ করবে, সে যেন ইসলামকে পিছনের দিকে নিক্ষেপ করল। (মুসলিম)।

http://sgsitsujjain.in/dat/rossiyskii-i-sovetskie-bollerini-otkrovennoe-fotoporno-besplatno-i-bez-registratsii.html российскии и советские боллерины откровенное фотопорно бесплатно и без регистрации
SHARE